ঢাকারবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, দুপুর ১:৩৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাস্তা সংস্কা‌রের না‌মে গুরুত্বপূর্ণ নগর উন্নয়‌ন তহ‌বি‌লের টাকা হ‌রিলুট সুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় !

মাহমুদুল হাসান, সাব-এডিটর
মে ১২, ২০২০ ৯:৩৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 58 বার
Link Copied!

মনীষ সরকার রানা, জেলা প্র‌তি‌নি‌ধি, গাইবান্ধা

(১২ মে, ২০২০) : জেলার সুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় রাস্তার সংস্কার কা‌জে ব্যাপক অ‌নিয়ম এর অভি‌যোগ উ‌ঠে‌ছে । গুরুত্ব পূর্ণ নগর উন্নয়ন তহ‌বিল থে‌কে এ সংস্কার কাজ‌টির জন্য ৭৪ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয় । গত ৭ মে তা‌রি‌খে রাস্তা‌টির সংস্কার কাজ দে‌খতে গে‌লে সত্যতা মে‌লে অ‌ভি‌যো‌গের । রাস্তায় ড‌ব্লিউ, পি, এম এর কা‌জে নিম্ন মা‌টের ই‌টের খোঁয়া ব্যবহার কর‌তে দেখা যায় ! ঘটনাস্থ‌লে হঠাৎ দেখা মে‌লে- ২ নম্বর ওয়া‌র্ডের স্থায়ী বা‌সিন্দা ক‌ল্লোল প্রামা‌নি‌কের ! তি‌নি অ‌ভি‌যোগ ক‌রে ব‌লেন, সংস্কার কা‌জে ১,২,৩ নম্বর ইট এর খোঁয়া নয় । চুলার পোড়া মা‌টি (রা‌বিস বা ইট ভাটার বর্জ) ব্যবহার কর‌ছে ঠিকাদার !

 

 

 

বিষয়‌টি জান‌তে পৌরসভায় কর্মরত সহকারী প্র‌কৌশলী মে‌হেদুল ইসলা‌মের নিকট তার মু‌ঠো‌ফো‌নে (01761 856746) যো‌গাযোগ কর‌লে মিঃ ইসলাম ব‌লেন ” ভাই, কাজ‌টি সম্প‌র্কে আমি কিছুই জা‌নিনা ! সব মেয়র স্যার দে‌খেন ! পৌরসভায় মেয়র স্যার যেটাই ক‌রেন সেটাই ঠিক ! আ‌মি তাঁর কর্মচারী মাত্র ” ।

 

 

আপ‌নি হ‌লেন প্র‌কৌশলী ? মেয়‌রের নি‌র্দেশনা মতন চল‌তি কাজ‌টি আপনার তদার‌কি করার কথা ? এ উত্ত‌রে মিঃ ইসলাম অ‌নেকটা ক্ষোভ ও দুঃ‌খের সা‌থে ব‌লেন-“সুন্দরগঞ্জ পৌরসভা আর দে‌শের অন্যান্য পৌরসভা এক নয় ! এখা‌নে আমার যোগ্যতা বা অ‌ভিজ্ঞতার কোন মূ্ল্য নাই ” ! কাজ‌টি কোন ঠিকাদারী প্র‌তিষ্ঠান পে‌য়ে‌ছে ? তখন মিঃ মে‌হেদুল ইসলাম ব‌লেন, ” নাম ম‌নে করতে পার‌ছি না ! ত‌বে স্থানীয় ১২ থে‌কে ১৬ জন ঠিকাদার কাজটি‌তে জ‌ড়িত ব‌লে শু‌নে‌ছি ! ”

 

 

বিস্তা‌রিত জানার জন্য পৌর মেয়র মোঃ আব্দুল্লাহ্ আল মামু‌নের মু‌ঠো‌ফো‌নে (01732 788939) একা‌ধিক বার কল কর‌লেও ব্যস্ততার কার‌নে হয়‌তো উ‌নি কল ধ‌রতে পা‌রেন নাই । ক‌রোনা সংক‌টে মোকা‌বেলায় বি‌ভিন্ন সমন্বয় সভা, অসহায় মানু‌ষের না‌মের lতা‌লিকা সংগ্রহ, ত্রাণ বিতরন নি‌য়ে ব্যস্ত থাকা স্বাভা‌বিক ! সে‌টিও ফোন কল না ধরার কারণ হ‌’তে পা‌রে ?

 

 

কা‌জের মান সম্প‌র্কে জান‌তে চাই‌লে, পৌরসভার নিয়‌মিত ঠিকাদার ও পৌর আওয়ামী লী‌গের সহ সভাপ‌তি লোকমান সরকার ব‌লেন-” উক্ত কাজ‌টি করা হ‌চ্ছে, কোন প্রকার নিয়ম নী‌তির তোয়াক্কা না ক‌রেই ! মেয়‌রের নি‌র্দেশনা মোতা‌বেক কাজ তদার‌কির দা‌য়িত্ব পৌর প্রকৌশলীর । ‌কিন্তু চল‌তি কাজ‌টি‌তে নি‌র্দেশনা, তদার‌কি সব কর‌ছেন মেয়র নি‌জেই ! মিঃ সরকার আরো জানান-‌পৌরসভার হিসাব রক্ষক নি‌জেও অ‌ন্যের কাজ কি‌নে, ঠিকাদারী ক‌রেন ! যে কাজ গু‌লো‌তে ব্য‌াপক অ‌নিয়ম হ‌য়ে‌ছে ” !

মিঃ সরকা‌রের সা‌থে আলাপরত অবস্থায় সেখা‌নে আস‌লেন ? ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউ‌ন্সিলর মোঃ সাজু সরদার ! কাউ‌ন্সিলর সাজু সরদারও উক্ত কা‌জে নিম্নমা‌নের ই‌টের খোঁয়া ব্যবহার করার কথা বল‌লেন । তি‌নি আ‌রো বল‌লেন-” সংস্কার কা‌জে নিম্নমা‌নের সামগ্রী ব্যবহার করার বিষয়‌টি তি‌নি, লি‌খিতভা‌বে মেয়র‌কে জা‌নি‌য়ে‌ছেন “। ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউ‌ন্সিলর মোহাম্মদ আলীর মু‌ঠো‌ফো‌নে (০১৭৩৭ ৫৬৮৬২৩) একা‌ধিকবার কল কর‌লেও তি‌নি তা ধ‌রেন নাই !

 

 

 

নাম প্রকাশ না করার শ‌র্তে বি,এন,‌পি’র উপ‌জেলা পর্য‌ায়ের এক নেতা কা‌জে নিম্ন মা‌নের উপকরন ব্যবহার করার কথা ব‌লেন !

একই অ‌ভি‌যোগ ক‌রেন প্রাথঃ বিদ্যাল‌য়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ তোফাজ্জল হো‌সেন লিটু, আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদুল ইসলাম চঞ্চলসহ আরো অ‌নে‌কেই ।

 

 

পৌরসভায় কর্মরত কোন কর্মকর্তা বা কর্মচারীর কর্মরত প্র‌তিষ্ঠা‌নের ঠিকাদারী করার সু‌যোগ র‌য়ে‌ছে কি ? বিষয়‌টি জান‌তে হিসাব রক্ষক মোঃ আশরাফুল এর মু‌ঠো‌ফো‌নে (০১৭২২ ৯০৩৫৩৪) কল কর‌লে, তি‌নি বিষয়‌টি অস্বীকার ক‌রেন । ব‌লেন-” ভাই আপ‌নি কোথায় আ‌ছেন ? পৌরসভার নিকটবর্তী কোথাও থাক‌লে ? আসেন কথা ব‌লি ! ভাই, একট‌ি মেয়র স্যা‌রের সা‌থে কথা বল‌তেন ” ! আমি একা‌ধিকবার মেয়রকে ফোন কর‌লেও মেয়র তা ধ‌রেন নাই ! একথা শু‌নেই মিঃ আশরাফুল ব‌লেন-” আমি মেয়র‌কে বল‌ছি, এখু‌নি আপনা‌কে কল কর‌তে ! ”

 

 

ঠিক ১৫/১৭ মি‌নি‌টের ম‌ধ্যে রিং বে‌জে উঠ‌লো আমার মু‌ঠো‌ফো‌নে ! দেখলাম নম্বর‌টি মেয়র ম‌হোত‌য়ের । কুশলা‌দি জিজ্ঞাসা ক‌রে ফোনালাম শেষ করলাম দ্রুত ।

 

 

 

পৌরসভায় কর্মরত প্র‌কৌশলীর কাজ সম্প‌র্কে ধারনা পে‌তে, ” গুরুত্বপূর্ণ নগর উন্নয়ন তহ‌বি‌লের, প্রকল্প প‌রিচালক (P.D) ম‌হোদয়ের মু‌ঠোফো‌নে যোগা‌যোগ ক‌রি । পি,ডি ম‌হোদয় বিষয়‌টি জরুরী ভি‌ত্তিতে দেখ‌বেন ব‌লে জানান” ।

 

 

দৈনিক বাংলাদেশ আলো পত্রিকায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না