ঢাকাশুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৮:১৫
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ফুলগাজীতে আত্মহত্যার প্ররোচনায় থানায় মামলা;

বিডি আলো ডেস্ক
জুন ৫, ২০২০ ৮:৪৯ অপরাহ্ণ
পঠিত: 88 বার
Link Copied!

মোঃ মেহেদী হাসান★ফেনী জেলা প্রতিনিধি#

ফুলগাজীতে সালমা আক্তার ( ১৮ ) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ । এ ঘটনায় আজ শুক্রবার বিকালে আত্মহত্যার প্ররােচনার অভিযােগ এনে স্বামী নজরুল ইসলাম , শ্বাশুড়ী মায়া আক্তার , দেবর কাউসার , শাকিল এ ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন ওই গৃহবধূর পিতা আবু তালেব ।

 

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কুতুব উদ্দিন মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান , লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে । অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে । পুলিশ ।

 

এর আগে দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে খবর পেয়ে আনন্দপুর ইউনিয়নের বন্ধুয়া হাজী স্টোর ভূঞাঁ বাড়িতে সালমা আক্তারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

 

নিহত গৃহবধূর স্বজনদের দাবী , যৌতুক না পেয়ে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে আত্মহত্যার নাটক সাজাচ্ছে শ্বশুরবাড়ির লােকজন ।

সালমার বাবা আবু তালেব জানান , বিয়ের পর হতেই সালামাকে ২ লাখ যৌতুকের জন্য চাপ দিয়ে আসছে তার শ্বশুরবাড়ির লােকজন । আমরা তা দিতে না পারায় মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে আত্নহত্যার নাটক সাজিয়েছে । ঘটনার পরপর তারা লাশ রেখে পালিয়ে গেছে । গতকালও ফ্রীজের কিস্তি পরিশােধের জন্য ১০ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে দেয়া হয় ।

 

সালমা আক্তারের মা খুশি বেগম জানান , বিয়ের পর থেকেই তারা আমাদের পরিবারের কাছে বিভিন্ন অজুহাতে অর্থ দাবি করে আসছে । আমাদের দেবার সামর্থ্য না থাকলেও বিভিন্নজন থেকে ধার করে মেয়ের শান্তির জন্য টাকা দিয়েছে তাদের।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় , মাত্র ৫ মাস আগে ফুলগাজী সদর ইউনিয়নের বৈরাগপুরের আবু তালেবের মেয়ে সালমার সাথে একই উপজেলার আনন্দপুরের ভুঞাবাড়ীর আবদুর শুকুরের ছেলে নজরুল ইসলাম শামীমের সাথে বিয়ে হয়েছিল ।

 

থানার উপপরিদর্শক মােঃ আশ্রাফ জানান , পারিবারিক কলহের জেরে এবং যৌতুকের টাকা পেয়ে আত্মহত্যায় বাধ্য করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করছি আমরা । ময়নাতদন্তে হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা প্রতিবেদন এলে বােঝা যাবে ।

দৈনিক বাংলাদেশ আলো পত্রিকায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না