ঢাকারবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ১১:৫৯
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ফেনীতে মৃত মুক্তিযোদ্ধার ভূয়া স্ত্রী পরিচয়ে ভাতা তুলেন এক নারী;

বিডি আলো ডেস্ক
জুন ১০, ২০২০ ৩:২১ অপরাহ্ণ
পঠিত: 43 বার
Link Copied!

মোঃ মেহেদী হাসান ★ ফেনী জেলা প্রতিনিধি #

ফেনীতে মৃত মুক্তিযোদ্ধার ভূয়া স্ত্রী পরিচয়ে বছরের পর বছর ভাতা তুলছেন এক নারী। ফেনী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড ধর্মপুর গ্রামের মৃত সুলতান আহম্মদের ছেলে মৃত আবু তাহের স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ভাতা তুলছেন আনোয়ারা বেগম। অভিযুক্ত আনোয়ারা বাড়িও ধর্মপুর ইউনিয়নে। তবে তিনি মৃত ব্যক্তির স্ত্রী তো নন, আত্মীয় নন। তার বাড়িও ওই গ্রামে নয়।

 

প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহেরের ভাই খায়েজ আহম্মদ বাংলাদেশ আলোকে জানান, ধর্মপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড ধর্মপুর গ্রামের মৃত সুলতান আহম্মদের ছেলে মৃত আবু তাহের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেন। ২০০০ সালে তিনি মারা গেলে বিএনপি সরকারের আমলে ২০০৫ সালের ৪ জুন প্রকাশিত বাংলাদেশ গেজেটে ৬৩ নং তালিকাভুক্ত মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের। ব্যক্তি জীবনে তিনি ছিলেন অবিবাহিত।

 

অনুসন্ধানে জানা যায়, ধর্মপুর ইউনিয়নের মঠবাড়িয়া এলাকার আবু তাহের খোকনের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম নিজকে মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহেরের স্ত্রী দাবী করে ভাতা উত্তোলন করেন। এরপর বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নজরে এলে তা বন্ধ করে দেয়া হয়। ধূর্ত আনোয়ারা কৌশলে এক শ্রেণির কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে ২০১৯ সালে পুনরায় ভাতা উত্তোলন শুরু করে।

 

মুক্তিযোদ্ধার ভাই খায়েজ আহম্মদ আরো জানান, আমার ভাই বিয়েই করেনি। স্ত্রী-সন্তান কোথা থেকে আসবে? ভাই মৃত্যুর পর মুক্তিযোদ্ধার গেজেটে নাম আসলে তার নাম ব্যবহার করে প্রতারণার মাধ্যমে ওই নারী টাকা উত্তোলন করছে যেনে তিনি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে অভিযোগ করেন।

ফেনী সদর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম বাংলাদেশ আলোকে জানান, ভুয়া পরিচয়ে ভাতা উত্তোলনের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভাতা বন্ধ করে দেয় হয়েছে। ঘটনার ব্যাখ্য চেয়ে অভিযুক্ত নারী আনোয়ারাকে চিঠি দেয়া হয়েছে। তার বক্তব্য জানার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আনোয়ারর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য জানা যায়নি।

ফেনী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরীন সুলতানা বাংলাদেশ আলোকে জানান, মৃত ব্যক্তির ভাতা ভুয়া নামে উত্তোলন করা অন্যায়। দোষী ব্যক্তি ও সহযোগীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অভিযোগ প্রমান হল উত্তোলিত সকল অর্থ সরকারী কোষাগারে ফিরিয়ে আনা হবে।

দৈনিক বাংলাদেশ আলো পত্রিকায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না