ঢাকাশুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৮:৪১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সোলার চুরির সন্দেহে এক কিশোরকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের মূল আসামী গ্রেফতার

মাহমুদুল হাসান, সাব-এডিটর
জুন ২৩, ২০২০ ৮:৫১ অপরাহ্ণ
পঠিত: 39 বার
Link Copied!

মোঃ আলিমুল ইসলাম,জেলা প্রতিনিধি,কুড়িগ্রাম। 
কচাকাটা থানার বলদিয়ার মংলারকুটিতে মসজিদের সোলার চুরির সন্দেহে এক কিশোরকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গাছের সাথে বেধে মধ্য যুগীয় কায়দায় নির্যাতনসহ কোমর থেকে পা পর্যন্ত বাশ ডলা দিয়ে অমানবিক নির্যাতন করেছে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও তার লোকজন। জানাগেছে প্রায় ১৫/২০ দিন পুর্বে কচাকাটা থানার বলদিয়া ইউনিয়নের মংলার কুটি গ্রামের মসজিদ থেকে একটি সোলার প্যানেল চুরি হয়। সোলার প্যানেল চোর সনাক্ত বা সোলার উদ্ধার না করেই গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় (১) বলদিয়া ইউপির সদস্য মোঃ রাজু আহমেদ (৪০) পিতা মৃত নুরমোহাম্মদ মাষ্টার ওরফে গোপাল ( ২)জাফর আলী মুন্সী পিতা মৃত পেলকু মুন্সী(৩) আয়নাল হক(৪০) পিতা ফজল কবিরাজ(৪) আব্দুল জলিল পিতা অজ্ঞাত (৫) জাহান উদ্দিন(৫০) পিতা মৃত সোনা উল্লাহ (৬ ) আব্দুল হান্নান(২৫) পিতা মৃত আলী আহাম্মদ সকলের গ্রাম মংলারকুটি সহ ১০/১২ জন সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে
মোঃ মাহবুবুর রহমান(১৭) পিতা জসীম উদ্দিন গ্রাম ছনবান্ধা খলিসাকুড়িকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে জাফর আলী মুন্সীর বাড়িতে গাছের সাথে বেধে মধ্য যুগীয় কায়দায় বেদম মারপীট, নির্যাতনসহ কোমর থেকে পা পর্যন্ত বাশচাপা/ বাশ ডলা দিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ সময় আটক মাহবুবুর রহমানের মা মোছাঃ মালেকা বেগম ছেলেকে উদ্ধার করতে গেলে তাকেও কিল ঘুষি ও লাত্থি দেয়। এদিকে এদের অমানবিক নির্যাতনে মাহবুবুর অজ্ঞান হয়ে পরলে মারা যেতে পারে ভেবে নির্যাতনের শিকার মাহবুবুরকে অজ্ঞান অবস্থায় তার মায়ের সাথে বাড়িতে পাঠায়।উল্লেখ্য মাহবুবুর ঐ মসজিদের সোলার হারানোর পর আজ থেকে প্রায় ১৪ দিন আগে সুবলপাড় মামার বাড়ি থেকে নিজের বাড়িতে এসেছিল। সোলার চুরির সন্দেহে মালামাল উদ্ধার এবং স্বাক্ষী প্রমান ছাড়াই তাকে অমানুষিক নির্যাতন করার বিষয়টি পুলিশ সুপারের নজরে এলে পুলিশ সুপারের নির্দেশে গতকাল গভীর রাতে এএসপি ভূরুঙ্গামারী সার্কেল শওকত হোসেন এর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সাথে জড়িত আসামী রাজু আহমেদ ও জাফর আহমেদ কে গ্রেফতার করা  হয়েছে। মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

দৈনিক বাংলাদেশ আলো পত্রিকায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না