ঢাকারবিবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১:৫১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু।

মাহমুদুল হাসান, সাব-এডিটর
জুন ২৪, ২০২০ ৩:০১ অপরাহ্ণ
পঠিত: 29 বার
Link Copied!

প্রকাশ দেব, চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গেটে সেলিনা আকতার শেলী (২২) নামে এক গার্মেন্টস কর্মীর লাশ পাওয়া গেছে।

আনোয়ারা থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার পর মর্গে প্রেরণ করেছে। আজ বুধবার (২৪ জুন) ভোর ৫ টায় হাসপাতালের গেটে মহিলার লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা আনোয়ারা থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্বার করে। হত্যা নাকি আত্মহত্যা কোনো কিছুই বলা যাচ্ছে না। মরদেহের গলায় আঘাতের দাগ রয়েছে। পরনে নীল রঙের সেলোয়ার কামিজ ছিল।

আনোয়ারা থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক মো. এমরান জানান, ভোরে খবর পেয়ে আনোয়ারা হাসপাতাল গেট থেকে মহিলার লাশটি উদ্ধার করি। লাশের গলায় দাগ থাকলেও কিভাবে মৃত্যু হয়েছে তা তদন্ত না করে বলা সম্ভব নয়। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের পর জানা যাবে। মরদেহটি কে বা কারা হাসপাতালের গেটে ফেলে গেছে, এ ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

উপ পুলিশ পরিদর্শক এমরান আরো বলেন, স্থানীয়রা জানিয়েছেন মরদেহ পাওয়া মহিলা দ্বিতীয় সংসার করছিলেন। ২ বছর আগে কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার মিঠাছড়ি গ্রামের মালুমঘাট এলাকার মোহাম্মদ নোমানের পুত্র সাকিবের সাথে চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর গ্রামের জেবল হোসেনের মেয়ে সেলিনা আকতারের বিয়ে হয়। স্বামী স্ত্রী দুজনই কেইপিজেডে চাকরি করতেন। বৈরাগ তেলের দোকানের এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।

আনোয়ারা থানার ওসি দুলাল মাহমুদ বলেন বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করছেন। আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

দৈনিক বাংলাদেশ আলো পত্রিকায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না