দিনাজপুরে আলুর ফলন ভালো হলেও বিপাকে চাষিরা!!


নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৭, ২০২১, ৭:৩৮ অপরাহ্ন /
দিনাজপুরে আলুর ফলন ভালো হলেও বিপাকে চাষিরা!!

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ মোঃ রিয়াদ হাসান আকাশঃ

দিনাজপুরে এবারে আলুর ফলন অনেক ভালো হওয়ায় খুশি আলুচাষিরা। কিন্তু বিপাকে আছেন আলুর দাম ও সংরক্ষণ ব্যবস্থা নিয়ে। এবারে জেলায় মোট আলু উৎপাদিত হয়েছে ১০ লাখ মেট্রিক টন। কিন্তু দিনাজপুরে হিমাগার রয়েছে মাত্র ১৩টি। যেখানে মাত্র ১ লাখ ২৪ হাজার ৯৬০ মেট্রিক টন আলু সংরক্ষণ করা যায়। বাকি ৮ হাজার ৭৬ মেট্রিক টন আলু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন আলুচাষিরা।

দিনাজপুরের ৩৪ লাখ ৮৮ হাজার ৭৯৩ জন মানুষের জন্য আলুর চাহিদা প্রায় ৫ লাখ মেট্রিক টন। অতিরিক্ত উৎপাদিত ৫ লাখ মেট্রিক টন আলু জেলার বাইরে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়।

বাজারে দাম নেই, হিমাগারে জায়গা নেই। তাই বিপুল পরিমাণ এই আলু রাখার জায়গা না থাকায় বাধ্য হয়েই লোকসানে আলু বিক্রি করে দিচ্ছেন চাষিরা। কেউ কেউ দামের আশায় ক্ষেতের মধ্যেই আলু স্তুপ করে রেখে দিয়েছেন।

এদিকে কৃষি বিভাগ বলছে, দিনাজপুরে যে জাতের আলু উৎপাদিত হয় তা বিদেশে রপ্তানিযোগ্য নয়। রপ্তানিযোগ্য আলু চাষ শুরু হলে এই সঙ্কট আর থাকবে না বলে কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়। দিনাজপুরের বিভিন্ন হিমাগারে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ধারণক্ষমতা শেষ হয়ে যাওয়ায় ইতোমধ্যেই বুকিং নেয়া বন্ধ করে দিয়েছেন হিমাগার মালিকরা।