বাগমারায় পাটের বাম্পার ফলন কৃষক এর মুখে হাসি


বিডি আলো ডেস্ক প্রকাশের সময় : জুলাই ৯, ২০২১, ১১:২১ অপরাহ্ন /
বাগমারায় পাটের বাম্পার ফলন কৃষক এর মুখে হাসি

বিশেষ প্রতিনিধি রবিনঃ

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় চলতি মৌসুমে সোনালী আঁশ খ্যাত পাটের ফলন হয়েছে। সেই সঙ্গে দাম ভালো থাকায় কৃষকের মুখে আবারো হাসি দেখা দিয়েছে। কৃষকরা জানান, চলতি বছর বিঘাপ্রতি দশ থেকে বারো মণ পর্যন্ত পাটের উৎপাদন হয়েছে। তাই পাট কেটে জাগ দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস জানায়, পাটপণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধি, পণ্যের মোড়কে পাটের ব্যাগ বাধ্যতামূলক করাসহ এর বহুমাত্রিক চাহিদা অনুযায়ী এবার পাটের আবাদ বেশি হয়েছে। তারা জানান কিছু জমিতে বিআর-৫২৪ জাতের পাট রোপণ করা হয়েছে এবং কিছু জমিতে ভারতীয় জাতের পাট আবাদ করেছেন কৃষকরা। উদ্ভাবিত ওই বিআর-৫২৪ জাত সাধারণ তোষা পাটের জাত থেকে কমপক্ষে ২০ শতাংশ বেশি ফলন হবে বলে তারা আশা করেন। নুতুন এই জাতের উচ্চতা সাধারণ পাটের চেয়ে ২০ সেন্টিমিটার বেশি যা সাধারণ তোষা পাটের তুলনায় ২০ দিন আগে কাটা যায় বলে জানান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার সাকলাইন হোসেন।কিন্তু কৃষি জমির প্রকৃতি পরিবর্তন করে পুকুর খনন করায় আবাদি জমির পরিমান কমে যাচ্ছে এবং চাষাবাদ হুমকির মুখে পড়ছে বলে এলাকার কৃষকরা দাবি করেছেন। কৃষকরা বলছেন, পাটের আবাদ করতে বিঘা প্রাতি সব মিলিয়ে প্রায় ৬ থেকে ৮ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হয়েছে তাদের। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাজিুবুর রহমান জানান উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে চলতি মৌসুমে প্রায় আড়াই হাজার হেক্টর জমিতে পাটের চাষাবাদ করা হয়েছে। এ বছর আবহাওয়া অনুকুলে থাকা এবং মাঝে মধ্যে বৃষ্টি হওয়ার কারণে পাটের উৎপাদন ভালো হয়েছে বলে তিনি মনে করেন।